কলকাতা, মে ৯: গত কয়েকদিন ধরেই অভিনেতা খরাজ মুখোপাধ্যায় এবং ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তকে নিয়ে বিতর্ক শুরু হয়েছে। মূল ঘটনার সূত্রপাত ঋতুপর্ণার প্রসঙ্গে করা খরাজের একটি মন্তব্যকে ঘিরে। একটি সংবাদ মাধ্যমে খরাজ মুখোপাধ্যায় ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তকে ‘অমৃতি’র সঙ্গে তুলনা করেন। তা নিয়েই বিস্তর জলঘোলা শুরু হয় নেট মাধ্যমে।

নিজের বক্তব্যের এমন বিকৃত ব্যাখ্যা হওয়ায় আহত হয়েছেন খরাজ। সম্পূর্ণ মজার ছলে বলা কথা যে জনমানসে এভাবে বিরূপ প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি করবে তা ঘূণাক্ষরেও বোঝেন নি তিনি। মিডিয়ার ইন্ধন পেয়েই মানুষ অনেক কটূ কথা ঋতুপর্ণার সম্পর্কে শুনিয়েছেন বলেও মত তাঁর।

এবার সেই বিতর্কে জল ঢালতে উদ্যোগী হলেন খোদ খরাজ মুখোপাধ্যায়। নিজের অফিশিয়াল সোশ্যাল হ্যান্ডেল থেকে একটি ভিডিও বার্তা দেন খরাজ। ঋতুপর্ণার ভূয়সী প্রশংসাও করেন অভিনেতা। ‘অমৃতি’ প্রসঙ্গে খরাজ বলেন, ঋতুপর্ণা আসলে প্রচন্ড আনপ্রেডিক্টেবল্ একজন মহিলা। ওঁকে বোঝা খুব কঠিন। ছবিতে অভিনয়ের ক্ষেত্রেও রিহার্সালে একরকম অভিনয় করে শট্ দেওয়ার সময় একেবারে অন্য মানের অভিনয় করেন তিনি। আগে থেকে একেবারেই ধরা যায়না তাঁকে, এটা বোঝানোর জন্যই অমৃতি’র অবতারণা। প্রসঙ্গত, কোনও একটি সংবাদমাধ্যমে খরাজকে প্রশ্নের ছলে বিভিন্ন অভিনেতার সঙ্গে তুলনা করে এক একটি মিষ্টির নাম বলতে বলা হয়।

অভিনেতা ঋতুপর্ণা এবং খরাজের যে পারস্পরিক শ্রদ্ধা ও সম্মানের সম্পর্ক তাও পরিস্কার তাঁর কথায়। সবসময় হাজার কাজে ব্যস্ত থাকা ঋতুপর্ণাকে উত্তমকুমারের মৃত্যুর পর প্রায় ডুবতে বসা বাংলা ছবির ইন্ডাস্ট্রিকে বাঁচিয়ে রাখার অন্যতম কান্ডারি হিসেবেও উল্লেখ করেন খরাজ।বাংলা ছবির দুর্দিনে ঋতুপর্ণা, প্রসেনজিৎ, তাপস পাল, চিরঞ্জিত এবং অভিষেক চট্টোপাধ্যায়ের মতো শিল্পীদের অবদান আবার মনে করিয়ে দেন বাংলা ছবির অন্যতম ‘ইরিপ্লেসেবল্’ অভিনেতা খরাজ।

অবশ্য নেট মাধ্যমে ঋতুপর্ণাকে অসংখ্য বাজে মন্তব্য শুনতে হওয়ায় তাঁর কাছে ক্ষমাও চেয়েছেন বহু ছবিতে ঋতুপর্ণার সহ-অভিনেতা। একে ঋতুপর্ণার খ্যাতির বিড়ম্বনা হিসেবেই দেখছেন তিনি। বরং ঋতুপর্ণাকে বাংলা ইন্ডাস্ট্রির ‘লক্ষ্মী’ বলেন খরাজ মুখোপাধ্যায়।

Loading

Spread the love