কলকাতা, সেপ্টেম্বর ১৯: মার্লিন গ্রুপের সহযোগিতায় ক্যালকাটা স্পোর্টস জার্নালিস্টস ক্লাব “মার্লিন সিএসজেসি ফুটবল টুর্নামেন্ট ২০২২” ঘোষণা করল। টুর্নামেন্টটি ২০ ও ২১ সেপ্টেম্বর রাজারহাট মার্লিন রাইজ ফুটবল গ্রাউন্ডে অনুষ্ঠিত হবে। কলকাতা প্রেস ক্লাবে আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনে উপস্থিত ছিলেন মার্লিন গ্রুপের এমডি সাকেত মোহতা এবং ডিরেক্টর সত্যেন সাঙ্ঘভি। উপস্থিত ছিলেন ক্যালকাটা স্পোর্টস জার্নালিস্টস ক্লাবের সকল সদস্য এবং ভারতের প্রাক্তন আন্তর্জাতিক ফুটবল তারকা দিপেন্দু বিশ্বাস এবং প্রশান্ত ব্যানার্জি।

কোভিড-এর কারণে বিগত কয়েক বছরে এই খেলা বন্ধ ছিল, পুনরায় সাংবাদিকদের মধ্যে খেলাধুলার সেই উদ্দীপনাকে পুনরুজ্জীবিত করতেই এই প্রয়াস। খেলাধুলার প্রচার মার্লিন গ্রুপ সবসময়ই করে থাকে। টুর্নামেন্টটি দুটি গ্রুপে, প্রিন্ট মিডিয়া এবং অডিও – ভিজ্যুয়াল মিডিয়ার দল নিয়ে খেলা হবে। প্রতিটি বিভাগে আলাদা বিজয়ীর সম্মান থাকবে। দুইদিন ব্যাপী এই টুর্নামেন্টে প্রায় ১৬ টি দল অংশগ্রহণ করবে।

১৯৫৬ সালে প্রতিষ্ঠিত ক্যালকাটা স্পোর্টস জার্নালিস্টস ক্লাব (CSJC), পূর্ব ভারতের একমাত্র সংগঠন যা শুধুমাত্র মিডিয়া জগতের ক্রীড়া সাংবাদিকদের দ্বারা পরিচালিত হয়।

সাকেত মোহতা বলেন, “আমরা আমাদের শরীর ও মনকে ফিট রাখতে খেলাধুলা কার্যক্রমে দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি। আমাদের স্পোর্টস সিটি মার্লিন রাইজ স্পোর্টস অ্যাকাডেমি স্থাপনের জন্য রোনাল্ডিনহো, যুবরাজ সিং এবং মাইকেল ফেলপসের মতো আন্তর্জাতিক ক্রীড়া ব্যক্তিত্বদের সাথে অংশীদারিত্ব করেছে। বলিউড অভিনেতা টাইগার শ্রফও এখানে তার এমএমএ অ্যাকাডেমি স্থাপন করবেন। আমাদের খেলার মাঠে টুর্নামেন্ট আয়োজন করে কলকাতা স্পোর্টস জার্নালিস্টস ক্লাবকে সমর্থন করতে পেরে আমরা খুবই আনন্দিত। আমরা সমস্ত মিডিয়া হাউসকে এই গ্র্যান্ড টুর্নামেন্টে অংশ নেওয়ার জন্য বিশেষভাবে অনুরোধ করছি, এটি আপনার স্বাস্থ্যের উন্নতির জন্য অনেক বেশি প্রয়োজন।”

সত্যেন সাঙ্ঘভি বলেন, “অ্যাকাডেমির যে পরিকাঠামো তৈরি করা হয়েছে, যা পূর্বাঞ্চলে প্রথম ফ্লাডলাইট সহ ইনডোর এবং আউটডোর এর কথা মাথায় রেখে। যাতে রাতে ফুটবল এবং ক্রিকেট খেলতে কোন অসুবিধা নেই।”

কলকাতা স্পোর্টস জার্নালিস্টস ক্লাবের সভাপতি সুভেন রাহার বক্তব্য, “মিডিয়া ফুটবল টুর্নামেন্টের অপেক্ষায় ক্যালকাটা স্পোর্টস জার্নালিস্টস ক্লাব থাকে৷ এটি আয়োজনে আমাদের সহায়তা করার জন্য মার্লিন গ্রুপকে ধন্যবাদ।”

কলকাতা স্পোর্টস জার্নালিস্টস ক্লাবের সচিব অর্চিমান ভাদুড়ী বলেছেন, “এই টুর্নামেন্টটি মাঠে লড়াই করার এবং তারপরে নতুন বন্ধু তৈরি করার একটি উপলক্ষও বটে। আমি নিশ্চিত মার্লিন গ্রুপের সাথে আমাদের অংশীদারিত্বও এখান থেকে শুরু হবে।”

Loading

Spread the love