কলকাতা, মে ১৭: দক্ষিণ কলকাতার একটি বুটিকের উদ্বোধন করতে এসে এক নতুন অভিজ্ঞতার মুখোমুখি হলেন অভিনেত্রী-সাংসদ নুসরত জাহান। এক মহিলা বাইকবাহিনী শাড়ি পরে বাইক নিয়ে তাঁকে অভ্যর্থনা জানাল। এরপর নিজে একটি বাইকে উঠে বসেই পড়েন উচ্ছ্বসিত অভিনেত্রী।

নিজের অনুভূতি জানাতে গিয়ে নুসরত সাংবাদিকদের বলেন, “আমি এরকম অভ্যর্থনা আশাই করিনি। আমি জানতাম শুধু ছেলেরাই বাইকে রেস দেয় কিন্তু যখন দেখলাম যে মহিলারা বাইকের উপরে বসে রেস দিচ্ছে, বেশ অন্যরকম লাগল”।

নিজের কলেজ-জীবনের কথা উল্লেখ করে নুসরত আরও বলেন, “স্কুল-কলেজে পড়ার সময়ে আমি নিজেও স্কুটি চালিয়েছি আর প্রচুর অ্যাক্সিডেন্টও করেছি। তাই একটু নস্ট্যালজিকও লাগল। আমার দারুণ লাগে যখন কোনও কাজ ছেলেদের বা মেয়েদের বলে আলাদা করে ভাগ করা হয় না। যে কাজটা তোমার করতে ভাললাগে, সেটা তুমি করতেই পার। এটা ছেলেরা করে বলে করব না বা এটা মেয়েরা করে বলে করব না ব্যাপারটা আমার উচিত নয় বলেই মনে হয়”।

সারা পৃথিবীতেই লিঙ্গ-বৈষম্যের বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়েছেন প্রচুর মানুষ। তবে ভারতে যে লিঙ্গ-বৈষম্য ব্যাপারটা অনেকটাই কম তাও বলেন বসিরহাটের সাংসদ নুসরত। তিনি আরও বলেন, “আমরা সবাই চেষ্টা করছি পুরুষ এবং নারী শব্দদুটির মধ্যে সেতুবন্ধন করতে। আমাদের দেশে ‘জেন্ডার ইক্যুয়ালিটি’ নিয়ে অনেক কথা হয় এবং আমার মনে হয় কোথাও গিয়ে সেটা এখন ধীরে ধীরে বাস্তবায়িতও হচ্ছে। এটার জন্য আমি গর্বিত”।

Loading

Spread the love