কলকাতা, সেপ্টেম্বর ৩: উত্তর ম্যাসিডোনিয়ার (North Macedonia) স্কোপিয়ে থেকে পররাষ্ট্র মন্ত্রী বজার ওসমানি (Bujar Osmani), ভারতে দেশটির রাষ্ট্রদূত স্লোবোদান উজুনব (Slobodan Uzunov) সহ কয়েকজনের প্রতিনিধি দল কলকাতায় ঘুরে গেলেন। সঙ্গে ছিলেন কলকাতায় দেশটির সাম্মানিক কনসাল নমিত বাজোরিয়া (Namit Bajoria)।

মাদার টেরেসা’র (Mother Teresa) জন্মের শহরের প্রতিনিধিত্ব করতে আসা দলটি মাদার হাউসে গিয়ে মাদারের প্রতি শ্রদ্ধা জানান এবং আর্চ-বিশপ হাউসে (Archbishop House) কলকাতার আর্চ-বিশপ টমাস ডিসুজার (Thomas D’Souza) সঙ্গেও দেখা করেন এবং মাদারের ব্রোঞ্জের মূর্তিতে মাল্যদান করেন।

“আমরা ভারত এবং ভারতের সঙ্গে আমাদের দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ককে আরও গভীর ও শক্তিশালী করার প্রতি অত্যন্ত যত্নশীল। অর্থনৈতিক ও রাজনৈতিক সহযোগিতার ক্ষেত্রে আমরা একটি নতুন অধ্যায় সূচনা করার পরিকল্পনা করছি। আমি বিশ্বাস করি ভারত এবং উত্তর ম্যাসিডোনিয়া প্রজাতন্ত্রের অর্থনৈতিক সম্পর্ক বৃদ্ধির এক বিশাল সম্ভাবনা রয়েছে”, বলেন বজার ওসমানি।

“মাদার টেরেসার জন্মস্থান থেকে আসা অতিথিদের সঙ্গে দেখা করে এবং মাদারের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে পেরে আমি অভিভূত। আমি আমাদের শুভাকাঙ্খী কলকাতায় উত্তর ম্যাসিডোনিয়ার সাম্মানিক কনসাল নমিত বাজোরিয়াকে ধন্যবাদ জানাই তাঁর সমর্থনের জন্য”, বলেন টমাস ডি’সুজা।

বজার ওসমানি ডব্লিউবিআইডিসি-র (WBIDC) চেয়ারপার্সন বন্দনা যাদব (Vandana Yadav) এর সঙ্গে দেখা করেন এবং পশ্চিমবঙ্গ ও উত্তর ম্যাসিডোনিয়ার মধ্যে ব্যবসায়িক সম্ভাবনার কথা বলেন। বন্দনা যাদব আসন্ন বেঙ্গল গ্লোবাল বিজনেস সামিট (BGBS) এর সময়ে ব্যবসায়িক প্রতিনিধিদের নিয়ে আসার জন্য তাঁকে অনুরোধ ও আমন্ত্রণ জানান। তিনি মেয়র ফিরহাদ হাকিমের (Firhad Hakim) সাথেও দেখা করেছেন এবং পর্যটন, সাংস্কৃতিক ও অন্যান্য ক্ষেত্রে সম্ভাবনার কথা নিয়ে আলোচনা করেছেন। মেয়রও তাঁকে বাণিজ্য সম্মেলনে (BGBS) আসার জন্য ব্যক্তিগত আমন্ত্রণ জানান।

মাদার টেরেসা হলেন সেই আলোকবর্তিকা যা স্কোপিয়ে এবং কলকাতাকে আধ্যাত্মিক বন্ধনে বাঁধে। স্কোপিয়ে তাঁর যেখানে তিনি জন্মগ্রহণ করেছিলেন সেখানে তার জন্মভূমি আর কলকাতা কর্মভূমি। আমি আগামীতে ভারত এবং উত্তর ম্যাসিডোনিয়া প্রজাতন্ত্রের মধ্যে সামাজিক, সাংস্কৃতিক, অর্থনৈতিক এবং রাজনৈতিক সম্পর্ক আরও গভীর হওয়ার অপেক্ষায় রয়েছি, “বলেন নমিত বাজোরিয়া৷

Loading

Spread the love