কলকাতা, মে ৩০: বেঙ্গল ফিল্ম অ্যান্ড টেলিভিশন চেম্বার অব কমার্স (BFTCC) সম্প্রতি চলচ্চিত্র শিল্পে অবদানের জন্য বিশিষ্ট মানুষদের জীবনকৃতি সম্মান প্রদান করল। চলচ্চিত্র শিল্পের সঙ্গে যুক্ত ভারত এবং বাংলাদেশের শিল্পীদের সম্মান জানিয়ে থাকে এই সংস্থা।

জীবনকৃতি সম্মান দেওয়া হয় বিশিষ্ট অভিনেত্রী মাধবী মুখোপাধ্যায়কে। হীরালাল সেনের নামাঙ্কিত সম্মান পান সত্যজিতের চারুলতা। বিশিষ্ট প্রযোজক বীরেন্দ্র নাথ সরকারের নামাঙ্কিত জীবনকৃতি সম্মান দেওয়া হয় সুরিন্দর ফিল্মস-এর কর্ণধার সর্দার সুরিন্দর সিংকে। চলচ্চিত্র সম্বন্ধীয় লেখা এবং চলচ্চিত্র সমালোচনার জন্য কালিষ মুখোপাধ্যায়ের নামাঙ্কিত জীবনকৃতি সম্মান পান সাংবাদিক নির্মল ধর। দেবকী কুমার বোসের নামাঙ্কিত জীবনকৃতি সম্মান পান চিত্র পরিচালক গৌতম ঘোষ। বাংলাদেশের বিখ্যাত অভিনেতা নায়ক রাজ রজ্জাকের নামাঙ্কিত জীবনকৃতি সম্মান দেওয়া হয় বাংলাদেশের বিশিষ্ট অভিনেতা ইলিয়াস কাঞ্চনকে।

একই মঞ্চে থেকে পুরস্কার দেওয়া হয় ৭ম বেঙ্গল ইন্টারন্যাশনাল শর্ট ফিল্ম ফেস্টিভ্যালের বিজয়ীদেরকেও। সেরা শর্ট ফিল্ম নির্বাচিত হয় সুদত আবেসিরিওয়ারদানা পরিচালিত শ্রীলঙ্কার ৮ মিনিটের ছবি ‘ব্রিদীং মেমারিজ’। শর্ট ফিল্ম বিভাগে দ্বিতীয় সেরা নির্বাচিত হয় বকুল মতিয়ানির ২২ মিনিটের হিন্দি ছবি ‘স্মাইল প্লিজ’। তথ্যচিত্র বিভাগে সেরার পুরস্কার জিতে নেয় সৌরভ ষড়ঙ্গী পরিচালিত ‘কারবালা মেমোয়্যার’। একই বিভাগে দ্বিতীয় সেরার পুরস্কার পায় সোমনাথ মন্ডল পরিচালিত ‘দুখু মাঝি’। ১৯ মিনিটের অসমীয়া ছবি ‘কুমু’র জন্য সেরা পরিচালকের পুরস্কার পান আকাঙ্ক্ষা ভগবতী। সায়নী চক্রবর্তীর ২০ মিনিটের ছবি ‘ইচ্ছেপূরণ’-এর জন্য সেরা চিত্রগ্রাহক নির্বাচিত হন সায়নী চক্রবর্তী এবং অপ্রতিম ভট্টাচার্য। চেক প্রজাতন্ত্রের ১৭ মিনিটের ছবি ‘অ্যান ইভিনিংস্ ট্রেইল’-এর জন্য সেরা অভিনেতার পুরস্কার জিতে নেন ব্রেন্ডন ডগলাস। ইন্দিরা ধর মুখোপাধ্যায়ের ১৭ মিনিটের হিন্দি ছবি ‘সোচ’-এর জন্য সেরা অভিনেত্রী নির্বাচিত হন জয়া শীল ঘোষ। শিশু অভিনেতা হিসেবে সেরা হন হিসে লামা, ১৩ মিনিটের নেপালি ছবি ‘জুনু কো জুতা’র জন্য।

Loading

Spread the love